যুক্তরাষ্ট্র ছাত্রলীগের দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভা
11
নিজস্ব প্রতিনিধি-
নিউইয়র্কে ১৫ আগস্ট জাতীয় শোখ দিবস ও ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় শহীদদের স্মরণে দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশ ছাত্রলীগের যুক্তরাষ্ট্র শাখার উদ্যোগে সোমবার নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটস্থ মেজবান রেস্টুরেন্ট’র হল রুমে অনুষ্ঠিত স্মরণ সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জাহিদ আহসান রাসেল এমপি।
যুক্তরাষ্ট্র ছাত্রলীগের সভাপতি জাহিদ হাসানের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক আলআমীন আকন’র সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মাহবুবুর রহমান, নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জাকারিয়া, মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি রায়হান মাহমুদ, ব্রুকলীন ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে নোয়াখালীর কৃতি ছাত্রনেতা সন্তান মাহমুদুল হাসানসহ প্রমুখ।12
সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় জাহিদ আহসান রাসেল এমপি বলেন- বাঙালীকে নেতৃত্বশূণ্য করতেই একাত্তরের পরাজিত শক্তি ১৫ আগস্টের মর্মস্তুদ হত্যাকান্ড ঘটায়। একই সাথে সেই হত্যাকান্ডের সুবিধাভোগী ও পরবর্তীকালে রাষ্ট্র ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত খুনিচক্র জাতির পিতার ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের হত্যার বিচারের পথও রুদ্ধ করে। একই চক্র ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার মধ্যদিয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনা ও আওয়ামী লীগের প্রথম সারির নেতাদের হত্যা করতে চেয়েছিলো। অথচ; আজকের বাস্তবতা হচ্ছে- আজকের বিশ্বে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। ঠিক তখনই নতুন কর ষড়যন্ত্রের জাল বোনা হচ্ছে। যুক্তরাস্ট্র ছাত্রলীগের প্রতিটি নেতাকর্মীকে তিনি দেশের স্বাধীনতা-মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরোধেী যে কোন ষড়যন্ত্র প্রতিহত করতে সজাগ থাকার আহবান জানান তিনি।
ছাত্রলীগ সভাপতি জাহিদ হাসান তাঁর বক্তব্যে বলেন- জাতির জনককে হত্যার মধ্য দিয়ে বাঙালীর অগ্রযাত্রাকে থামিয়ে দিতে চেয়েছিলো ঘাতকেরা। শোককে শক্তিতে পরিণত করে জননেত্রী শেখ হাসিনা আজ বিশ্বের দরবারে মর্যাদার আসনে প্রতিষ্ঠিত করেছেন বাংলাদেশকে। অথচ ৭৫’র খুনিচক্র ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা করে আমাদের প্রিয় নেত্রীকে হত্যা করতে চেয়েছিলো। জাতির জনকের পলাতক খুনিদের ফিরিয়ে নিয়ে রায় কার্যকর করা এবং ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার দ্রুত বিচারকার্য সম্পাদনের দাবী জানান তিনি।
সভা শেষে ১৫ আগস্ট ও ২১ আগস্টে শাহাদাতবরণকারীদের রূহের মাগফেরাত কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
12