সুবর্ণচরে স্মৃতিচারণ ও র‌্যালীর মধ্য দিয়ে ভয়াল ১২ নভেম্বর পালিত
11
নিজস্ব প্রতিনিধি
নোয়াখালীর সুবর্ণচরে রোববার ভয়াল ১২ নভেম্বর পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে উপজেলার চরবাটায় সকালে সাগরিকা সমাজ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে সচেতনতামূলক এক র‌্যালী বের করা হয়। পরে সংস্থার প্রধান কার্যালয়ে ১২ নভেম্বর ১৯৭০ সনের ঘুণীঝড় ‘গোর্কি’র ভয়াবহতা নিয়ে স্মৃতিচারণ করা হয়।
স্মৃতিচারণ করে বক্তব্য রাখেন, সংস্থার কার্য নির্বাহী পরিষদের সভাপতি ও সৈকত ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মোহাম্মদ মোনায়েম খান, সংস্থার নির্বাহী পরিচালক মো. রুহুল মতিন প্রমুখ। এ সময় স্বেচ্ছাসেবক সংগঠন সিপিপি স্বেচ্ছাসেবকগণ, উপকূলীয় সাধারণ মানুষসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশ নেয়।
স্মৃতিচারণকালে তাঁরা বলেন, ১৯৭০’র ১২ নভেম্বরের ভয়াল গোর্কিতে নোয়াখালী উপকূলের অর্ধলক্ষাধিক লোকের প্রাণহানি ঘটে। হাতিয়া, কোম্পানীগঞ্জের পাশাপাশি ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি তৈরি হয় সুবর্ণচরে। তছনছ হয়ে যায় উপজেলার বাসিন্দাদের ঘর-বাড়ি। অনেকে হারিয়েছে স্বজ্জন। স্মৃতিচারণকারীদের কণ্ঠে সেদিনের ঘুণীঝড়ের ভয়াবহতার কথা শুনে উপস্থিত অনেকে আফ্লুত হয়ে পড়েন। স্বজন হারানোর কথা মনে পড়ায় কেঁদে ফেলেন অনেকে। এ সময় বক্তারা তৎকালীন ঘুর্ণীঝড় পরবর্তী মানুষকে রক্ষার জন্য সাগরিকা সমাজ উন্নয়ন সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক মরহুম ফজলুল হক ওরফে হক সাহেবের প্রাণান্তকর চেষ্টা ও অবদানের কথা তুলে ধরেন।
বক্তারা উপকূলকে আগামী দিনে এমন ভয়াবহতা থেকে রক্ষার জন্য সকলকে সামাজিক বনায়নের গড়ে তোলার আহ্বান জানান।
চলতি সংবাদ